Friday, June 09, 2017

খাগড়াছড়িতে জামিনে মুক্তি পাওয়া হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কর্মী-সমর্থকদের সংবর্ধনা

খাগড়াছড়ি : গত ৭ জুন (বুধবার) খাগড়াছড়ি সদরের স্বনির্ভরে শান্তিপুর্ণ মিছিলে বিজিবি-পুলিশের হামলায় আটক ও পরে কোর্ট থেকে জামিনে মুক্তি পাওয়া হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কর্মী-সমর্থকদের ফুল দিয়ে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। জামিনে মুক্তি পাওয়াদের মধ্যে রয়েছেন- ১.এন্টি চাকমা, ২.জনতা চাকমা ৩.বিশাখা চাকমা ৪.রুপা চাকমা ৫. সোনাবী চাকমা। এর মধ্যে বিশাখা চাকমাকে তার আত্মীয়-স্বজনরা বাড়িতে নিয়ে যাওয়ায় তিনি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারেননি।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৮ জুন) বিকালে জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর স্বনির্ভর বাজারে ইউপিডিএফ কার্যালয়ের সম্মুখে চৌরাস্তায় পিসিপি ও এইচডব্লিউএফ-এর পক্ষ থেকে তাদেরকে ফুলের মালা পরিয়ে তাক্ষণিকভাবে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।  এ সময় পিসিপি ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের প্রায় শতাধিক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।
বৃহস্পতিবার সকাল থেকে হিল উইমেন্স ফেডারেশনসহ সংগঠনের শুভাকাঙ্খি ও সমর্থকদের প্রায় ৫০ জনাধিক একটি টীম খাগড়াছড়ির জেলা জর্জ কোর্টে অবস্থান নেয়। জামিনে মক্তি পাওয়ার পর তারা মুক্তিপ্রাপ্ত ৫ কর্মী-সমর্থককে সরাসরি স্বনির্ভরস্থ ইউপিডিএফ কার্যালয়ে নিয়ে আসেন।
স্বনির্ভর বাজারের বটতলায় তাঁদেরকে স্বাগত জানান হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি দ্বিতীয়া চাকমার নেতৃত্বে পিসিপি ও এইচডব্লিউএফ নেতৃবৃ্ন্দ। এরপর ইউপিডিএফ কার্যালয়ে পৌঁছলে তাঁদেরকে স্বাগত জানান ইউপিডিএফ খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের সদস্য মাইকেল চাকমা, পিসিপি’র কেন্দ্রীয় সভাপতি বিনয়ন চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক অনিল চাকমা।
মুক্তিপ্রাপ্তদের সংবর্ধনা উপলক্ষে স্বনির্ভর বাজারে একটি সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগাড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি দ্বিতীয়া চাকমা, সংগঠনিক সম্পাদক রেশমী মারমা ও পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সহ-সভাপতি তপন চাকমা।
বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের নারী সমাজ জেগেছে। সরকার ও তার পেটোয়া বাহিনী শত দমন-পীড়ন গ্রেফতার নির্যাতন চালালেও রাজপথ থেকে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের সরাতে পারবে না।
বক্তারা আগামীতে যে কোন কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলা করার দৃঢ় প্রত্যয় ঘোষণা করার জন্য উপস্থিত নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।
উল্লেখ্য, কল্পনা চাকমা’র অপহরণকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে বুধবার সকালে হিল উইমেন্স ফেডারেশন-এর খাগড়াছড়ি জেলা শাখার উদ্যোগে স্বনির্ভরে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়। মিছিলটি ইউপিডিএফ কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে স্বনির্ভর বটতলার দিকে আসতে চাইলে বিজিবি-পুলিশ সদস্যরা বাধা দেয় এবং ব্যানার কেড়ে নেয়ার চেষ্টা চালায়। মিছিলকারীরর এর প্রতিবাদ জানালে বিজিবি-পুলিশ সদস্যরা মিছিলে অংশগ্রহণকারী নারীদের উপর বেপরোয়া লাঠিচার্জ করে। এতে বেশ কয়েকজন নারী আহত হন। পরে বিজিবি-পুলিশ সদস্যরা স্বনির্ভর বাজারের দোকানপাটসহ পার্শ্ববর্তী উত্তর খবংপয্যা গ্রামে ঢুকে ঘরবাড়ি তল্লাশি চালিয়ে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কর্মী-সমর্থকসহ ২১ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিকালে ১৩ জনকে ছেড়ে দেওয়া হলেও বাকী ৮ জনকে থানায় আটক রাখা হয়।
বৃহস্পতিবার দুপুরে আটক ৮ জনকে খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নেওয়া হয়। আদালত উক্ত ৫ জনের জামিন মঞ্জুর করে বাকী ৩ জনকে (পিপি চাকমা, সোনালী চাকমা ও মেকিনা চাকমা) কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
————–


No comments: